July 31, 2014

চেহারার রঙ


কালার করা নিয়ে আমার নিজের বিরাট ঘাপলা আছে। তবে মোটা দাগে কিছু ব্যাপার ধরতে পেরেছি। সেগুলি ছোট নোটস আকারে লেখা যাক। মানুষের মুখের রঙ করতে গেলে মূলতঃ তিনটা বেসিক শেড দরকার। মাথার ওপরের দিক বা কপাল অর্থাৎ যেটা আসলে খুলির সাথে লেগে আছে সেই অংশটা আসলে অনেকটা হলুদ রঙের হয়। তাই বলে একেবারে ক্যাটক্যাটা হলুদ না দিয়ে কিছুটা হলদে করে নেয়া ভাল। এর পরের অংশ মানে গাল অনেকটাই লালচে হয়। আসলে যে অংশে মাংস বেশী সে অংশই লালচে হয় আর হাড়ের কাছাকাছি জায়গা গুলি হলদে। এবারে শেষের যে অংশটা চিবুক সেখানে অনেকটা নীলচে রঙ হয়, এই পার্ট টা একটু টৃকি। কারন নীলচে বল্লেও এটা পুরোপুরি নীল না। এটা আসলে গালের লাল রংটারই ডিস্যাচুরেটেড মানে একটু গ্রে মিলিয়ে নিলে যা হবে (ওপেক কালার যেমন পোস্টার বা তেল গোয়াশ ইত্যাদির ক্ষেত্রে জল রঙ এ কোবাল্ট ব্লু টাও মিলিয়ে দেখা যেতে পারে।) এবারে আস্তে আস্তে একটার সাথে আরেকটা ব্লেন্ড করে গেলেই একটা মজার প্যলেট হবে। সবচেয়ে ভাল হয় এটুকু বুঝে ওল্ড মাস্টারদের কিছু পোর্ট্রেইট পেইন্টিং দেখা। আশা করি এই পোস্ট কালার চেহারা করতে কিছুটা কাজে দেবে।

No comments:

Post a Comment