November 08, 2010

অবজেক্ট দূরে সরানো

ফেইসবুকে রকিবুল হাসানের একটা কাজ দেখে মনে হল এই পোস্ট টা লিখি। কোন অবজেক্ট কোনটা থেকে কত দূরে তা কয়েকভাবে মেইন্টেইন করা যায়। যেমন পার্স্পেক্টিভ, যেমন আকৃতি, এবং যেমন 'রঙ'
রঙের ব্যপারটা বেশ মজার। সেটা আর কিছুই না, যে জিনিষ যত দূরে সেটা তত ঝাপসা। এমনকি একই রঙের বস্তু যত দূরে যাবে তত ঘোলা লাগবে। ব্যপারটা সবচেয়ে সহজে বোঝা যায় প্রকৃতি থেকে, পাহাড়ী দৃশ্যপটগুলি দেখুন--










সবচেয়ে পেছনের লেয়ারটা সবচেয়ে হালকা। তার মানে রকিবুলের এই আঁকাতে পেছনের শার্ক টাইপ মাছটা আরো অনেক ঘোলা ও ব্লার্ড হত। (ডান পাশে করে দেয়া হয়েছে) নিচের গোল্লা গুলি দিয়ে ব্যপারটা বোঝানো হয়েছে। এবারে প্রশ্ন হল ঘোলা আর ঝাপসা ইত্যাদি ফটোশপে কেমনে করে? ব্যপারটা খুব সহজ। নিচের ব্যপারটা দেখেন-



শুধু কালার নিয়ে আমি আরেকটা পোস্ট দেবো, তাও এখানে সংক্ষেপে বলি, কোন একটা রঙ এ ক্লিক করলে (F6 চাপলে যেটা আসে) যেই বাকশো টা আসে সেইটা আসলে ওই একটা রঙ এরই Tint, Shade আর Tone. একদম ডান দিকের ওপরের কোনায় ওই কালারটার পিওর গ্রেডটা থাকে, বাংলায় বললে সেটা সবচেয়ে 'উজ্জ্বল' বা 'ক্যটক্যটা' (আমাদের এই ভূখন্ডের ভৌগোলিক অবস্থানের ক্রনে আমাদের রঙের বিন্যাস ওই উপরের কোনার দিকেই ঘোরাঘুরি করে) আর বামে গেলে সেটা ঝাপসা হতে থাকবে। নিচে গেলে কালো মিশ্তে থাকবে অর্থাৎ যদি ছায়া পরে তবে ওই একই রঙ কেমন হবে সেটা। মনে করুন এক রঙের একটা জামা, সেটা তে কোথাও আলো পরে কোথাও ছায়া, তার মানে ওটার আলোর দিকের রংটা নিতে হবে এই রঙ বাক্সের ওপরে বাম থেকে, আর ছায়ার অংশ নিতে হবে নিচের কালো দিক থেকে। তিন তালের গান দ্রষ্টব্য। কোন কিছু পেইন্ট করতে গেলে এইটুক মাথায় রাখলেই ভালো ফল পাওয়া সম্ভব।
---
এরপর ওয়ার্ম ও কুল কালার নিয়ে পোস্ট দিবো... দুনিয়া আসলে রঙ্গীন...

No comments:

Post a Comment