May 25, 2019

লং টাইম নো C

ইদানীং ব্লগ লেখা হয়ে উঠছে না, কাজের প্রেশারের চাইতে বড় কারণ হল ব্লগ আদৌ কেউ এখন আর পড়ে কি না সেটাই জানি না। আজ হঠাত Rafiraf আইডি থেকে একটা কমেন্ট পেলাম যে সে মাঝে মাঝেই আমার ব্লগে ঢোকে ও গত মাস দুই ধরে কোন নতুন পোস্ট না থাকায় সে বিরক্ত। তখন মনে হল অন্তত একজনও যদি পড়ে খারাপ কী? তাই নতুন করে নিয়মিত আবার লেখার জন্যে এই ওয়ার্ম আপ পোস্ট। কী দিয়ে শুরু করা যায়? মাঝে ঘটে গেছে দারুণ দারুণ অনেক কিছু, কাজের চাপে চিঁড়েচ্যাপ্টা হয়ে আছি। সেই কাজ গুলি নিয়েই বলা যাক।

১. UNICEF ও British Council মিলে বাংলাদেশের অস্থায়ী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকা শিশুদের জন্যে স্কুলের বই তৈরী করছে। তাদের বইগুলি আমাদের বাংলাদেশের বই হলে হবে না। আলাদা করে তাদের মত করে বইগুলির টেক্সট করে দিয়েছে ব্রিটিশ কাউন্সিল (তাদের এপয়েন্টেড একটি ফার্ম DLA কাজটা করে দিচ্ছে ইউকে থেকে) আর সেই পাঁচ লাখ রোহিঙ্গা শিশুদের জন্যে করা বইগুলির ইলাস্ট্রেশন করছি আমি, কার্টুনিস্ট মিতু, আসিফুর রহমান আর রোমেল বড়ুয়া। মানে প্রজেক্ট টিকটালিক আর ঢাকা কমিক্স টিম। আক্ষরিক অর্থেই হাজার হাজার ড্রয়িং, আমরা সবাই মিলে সেই ফেব্রুয়ারি থেকে টানা করেও অর্ধেক শেষ হয়নি। তবে রোহিঙ্গা বাচ্চারা কিছু ভাল বই পাবে এটা আশা করা যায়। আমাদের চুক্তি অনুযায়ী সেই প্রজেক্টের কাজ কোথাও এখনো দেখানো যাচ্ছে না :/


২. ময়মনসিংহ গীতিকা অবলম্বনে হচ্ছে গ্রাফিক নভেল। বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে এর দুটো গ্রাফিক নভেল করছি। মহুয়া আর দস্যূ কেনারাম। দারুণ উপভোগ করছি, ড্রাফট শেষ। এখন ফাইনালাইজ করার পালা।





৩. ঢাকা কমিক্সের নতুন শো রুম নিচ্ছি। পান্থপথ মোড়ে। ঈদের পরে পুরোদমে কাজ শুরু। মাঝে সেন্ট্রাল রোডে কিছুদিন ছিলাম, অনিবার্য কারণে সেটা এখন পান্থপথে আরো ভাল লোকেশনে নিয়ে আসা হচ্ছে। অফিস গোছানো টোছানো ইত্যাদি কাজে জান পহেচান। বেশ কিছু সময় গেছে আগেরবার। এবারেও যাবে।
শো রুম (যেটা ছেড়ে দিচ্ছি :/)
বস-আহসান হাবীবের  উদ্বোধন

৪. শুরু হয়েছে আঁকান্তিস কার্টুন স্কুলের কাজ। ৯ বছর ধরে এর তার বাড়িতে পথে ঘাটে ঘুরে অবশেষে একটা জায়গায় থিতু হচ্ছি আমরা। সেটা সেই ঢাকা কমিক্সের পান্থপথের অফিসেরই একটা বড় রুমে। আর সেই সাথে থাকছে অনলাইন স্কুল। স্কুল জীবনের বন্ধু ফয়সাল দারুণ সাইটটা তৈরী করে সব বুঝিয়ে দিয়ে গেছে। কিন্তু কিছুই বুঝতে না পেরে সাইটটা ওভাবেই ফেলে রেখেছি। তবে দ্রুতই প্রফেশনাল কোর্সগুলি আপ করা হয়ে যাবে।
আগ্রহীরা রেজিস্ট্রেশন করে ফেলুন এখানে


৫. আঁকান্তিসের একটা ইউটিউব চ্যানেল খোলা হয়েছে! প্রতি শুক্রবার সেখানে আপ করা হচ্ছে ড্রয়িং এর ফৃ টিউটোরিয়াল। অগোছালো ভাবে অসংখ্য টিউটোরিয়াল অনেক জায়গায় করে এসেছি। এবারে একটু গুছিয়ে করার জন্যেই এই চ্যানেল। আর সবথেকে বড় চ্যলেঞ্জ হল প্রতি সপ্তাহে একই সময়ে একটা কাজ আপ করা। এখন পর্যন্ত পেরেছি। দেখা যাক কদ্দুর করা যায়। (মাঝে একাধিক প্রফাইল থেকে ফেইসবুকের পেইজে নক- ভাই আপনার ভিডিওতে ভিউ নাই, আমরা টাকার বিনিময়ে ভিউ বাড়ায় থাকি। আগ্রহী হইলে কল দ্যান।)  




৬. এনিমেশন প্রজেক্ট চলছে! আসলে খুবই মিনিমাম এনিমেশন শিখেছি। বাংলাদেশে এনিমেটরদের বিভিন্ন অজুহাত শুনি যে কার্টুন এনিমেশন এখানে বানানো প্রায় অসম্ভব। বড় বাজেট না হলে হবে না। কিন্তু আমার কথা হল নিজের জন্যে তো করা যায়। আওরা যখন একটা এমনি এমনি ড্রয়িং করি সেটা কিন্তু নিজের ভাল লাগার জন্যেই। সেটার জন্যে কেউ টাকা দেয় না, তাহলে সেভাবে ছোট করে এনিমেশন করলে সমস্যা কোথায়? সেটা ভেবে নিজেই শিখে নিচ্ছি। বছর খানেক পরে এখন রীতিমতন পরফেশনাল এক্সপ্লেইনার এনিমেশন বানাচ্ছি। এই মুহূর্তে এরকম তিন মিনিটের একটা কাজ চলছে, এনিমেটিক জমা হয়ে গেছে। ওই প্রজেক্ট গুলি শেয়ার করা যাবে কি না শিওর না, তাই উন্মাদের জন্যে মজা করে বানানো একটা ড্রাফট দিয়ে দেই এখানে।



নিউ এইজের প্রতিদিনের পলিটিক্যাল কার্টুনের বাইরে এইগুলি চলছে আপাতত। জুলাই মাস থেকে শুরু করব রুহান রুহান গ্রাফিক নভেলের শেষ পর্ব। এই সিন্দাবাদের ভুত নামাতে হবে।








1 comment:

  1. জনাব,আমি Rafiraf. Mobile এ আমি একাউন্টে ঢুকতে পারতেছিলাম না। নতুন কাজ দেখে ভাল লাগল।(অনেক আগেই দেখছি। কমেন্ট করি নাই দেখে ভাবলাম আজ করি)। লাখে টা পরলাম, ভালই লাগল। তউহিদুল ইকবাল শম্পদের দুরজয় টাআবার পরলাম। বাকি আট টা edition শিগ্রই পরব। Good luck on your projects.

    ReplyDelete

বিদায় ব্লগস্পট

গুণে গুণে ১২ বছর এখানে কাটালাম, এবং হঠাৎ সেদিন হঠাৎ আবিষ্কার কুরলাম আমি ছাড়া আর কেউই নেই আশেপাশে। খোঁজ নিয়ে দেখতে পাচ্ছি এখন আর্টিস্টরা সবাই...